আইডিয়া ব্যাংক

অত্র ব্যাংকের উদ্ভাবনী আইডিয়া সমূহ A2I কর্তৃক প্রস্তুতকৃত এবং পরিচালিত আইডিয়া ব্যাংকে দাখিল করা হয়েছে।

২) অনলাইন বিল ব্যবস্থাপনা সিস্টেম: সরবরাহকারীদের দাখিলকৃত বিল প্রদান প্রক্রিয়া সহজীকরণ

সমস্যা অফিসের কার্যাবলী পরিচালনে বিভিন্ন প্রকার জিনিসপত্র কেনার প্রয়োজন হয়ে থাকে। এর জন্য আমাদের বিভিন্ন ভেন্ডরের কাছ থেকে জিনিসপত্র কিনতে হয়। এর বিপরীতে ভেন্ডর কর্তৃক দাখিলকৃত বিল অডিট বিভাগ ও যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদন সাপেক্ষে অ্যাকাউন্টস বিভাগ কর্তৃক ভেন্ডরকে চেক প্রদান করা হয়ে থাকে। যেহেতু পুরো হিসাব-নিকাশ প্রক্রিয়াটি ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে করা হয়ে থাকে তাই সার্বিক তথ্য পাওয়ার ক্ষেত্রে সময়ের অপচয় হয় এবং কোন বিল কোন দপ্তরে কি অবস্থায় আছে তা জানা সময়সাপেক্ষ হয়ে দাড়ায়।

সমাধানের বিবরণ:

ব্যাংকে সরবরাহকারী কর্তৃক দাখিলকৃত বিল সংরক্ষন ও প্রদান সংক্রান্ত কাজসমূহ সমাধা করার জন্য একটি Customized Bill Management System সফটওয়্যার প্রস্তুত করা। উক্ত সফটওয়্যারটিতে বিল ও পেমেন্ট সংরক্ষনের কাজসমূহ নিম্নোক্তভাবে সম্পাদন করা হবে:

  • নির্দিষ্ট ওয়েব সাইটের মাধ্যমে বিল ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম সফটওয়্যারটির Home Page পাওয়া যাবে।
  • উপ-বিভাগ অনুযায়ী ব্যবহারকারী Software এ Log In করতে পারবে এবং সেই উপ-বিভাগে ভেন্ডর কর্তৃক প্রাপ্ত বিভিন্ন বিল এর তথ্য এন্ট্রি করতে পারবে এবং এন্ট্রিকৃত বিলের তথ্য বর্তমান অবস্থা (বর্তমানে বিলটি কোন দপ্তরে আছে/বিলটি প্রদান করা হয়েছে কিনা/বিলের বিভিন্ন নোট থাকলে তা জানতে পারবে।) জানতে পারবে।
  • এন্ট্রিকৃত বিলটি নিজ Home Page থেকেই বিভিন্ন দপ্তরে আপ করতে পারবে। বিলের বিপরীতে কোন নোট থাকলে তা এন্ট্রি করা এবং দেখা যাবে।
  • অনুমোদনের জন্য কোন দপ্তরে প্রেরণকৃত বিল সেই দপ্তরের অনুমোদনকারী কর্মকর্তা তাঁর Home page এ দেখতে পাবে এবং এখান থেকেই বিলটি অনুমোদন বা ফেরত এবং এর বিপরীতে কোন নোট থাকলে তা এন্ট্রি দিতে পারবে এবং তা নির্দিষ্ট উপ-বিভাগে দেখা যাবে।
  • বিভিন্ন প্রকার রিপোর্ট সহজেই Home Page হতে পাওয়া যাবে। যেমন: কয়টি বিলের কাজ পেন্ডিং আছে/ কয়টি বিল কোন দপ্তর থেকে অনুমোদন হয়েছে বা ফেরত এসেছে/ কয়টি বিলের চেক প্রদান করা হয়েছে।

উপকারিতা/সুফলঃ

  • বিল সংরক্ষন ও বিল পেমেন্ট হিসাবায়ন পদ্ধতি অধিকতর সহজ, নির্ভুল ও শ্রমবিহীন হবে।
  • বিভাগ, উপ-বিভাগভিত্তিক বিল সংক্রান্ত সার্বিক তথ্যের জন্য অতিরিক্ত কোন শ্রম ও সময়ের প্রয়োজন হবে না। এ সংক্রান্ত হিসাবায়ন স্বয়ংক্রিয়ভাবে তৈরি থাকবে।
  • নির্ভুলভাবে এবং দ্রুততম সময়ে হিসাব সংরক্ষন করা।
  • এক সাথে একাধিক বিভাগ বা উপ-বিভাগের তথ্য অথবা আলাদা আলাদা বিভাগ বা উপ-বিভাগের বিল সংক্রান্ত তথ্য তাৎক্ষনিকভাবে পাওয়া।
  • ম্যানুয়াল পদ্ধতির বিল সংরক্ষণ ও প্রদান প্রক্রিয়াটিকে অটোমেশনের আওতায় নিয়ে আসা।
  • সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান কর্তৃক দাখিলকৃত বিল দ্রুততম সময়ে প্রদান করা।
  • সর্বোপরি ব্যাংকের ভাবমূর্তি উজ্জল করা।

১) আনসার-ভিডিপি অনলাইন শেয়ার ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম সফটওয়্যার

সমস্যা:

রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ জনকল্যাণ ও জননিরাপত্তামূলক কাজে নিয়োজিত আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রায় ৬১ লক্ষ সদস্য-সদস্যাদের বেকারত্ব দুর করে আত্ম-কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টির মাধ্যমে দারিদ্র্য বিমোচনের মহৎ উদ্দেশ্য নিয়ে ১৯৯৫ সনে আনসার-ভিডিপি উন্নয়ন ব্যাংক যাত্রা শুরু করে। শেয়ারের মালিকানা আনসার ও ভিডিপি সদস্য/সদস্যার অংশ ৭৫% এবং সরকারের অংশ ২৫%। ব্যাংকের মোট শেয়ারহোল্ডার সংখ্যা (জুন ২০১৭) : ২৬,৫২,৭৫২।

উপকারিতা/সুফলঃ

  • শেয়ারহোল্ডারদের মূল্যাবান সময়, শ্রম এবং আনুষাঙ্গিক ব্যয় সাশ্রয়সহ ব্যাংকের শেয়ার সম্প্রসারণ কার্যক্রম আরো কার্যকরী করা এর মূল লক্ষ্য।
  • শেয়ার সংক্রান্ত যাবতীয় কার্যক্রম অনলাইন ভিত্তিক হওয়ায় দেশের যেকোন প্রান্ত থেকেই শেয়ার হোল্ডারগণের কাঙিক্ষত সেবা প্রদান করা।
  • Dividend Calculation স্বয়ংক্রিয় হওয়ায় এ সংক্রান্ত যাবতীয় হিসাবের বিবরণ তাৎক্ষনিক প্রদান করা।
  • ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট শাখার মাধ্যমে লভ্যাংশের টাকা প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহন করা।
  • শেয়ারহোল্ডারগণের মূল্যবান সময় তথা অর্থ সাশ্রয় করা।

সমাধানের বিবরণ:

  • নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটের মাধ্যমে শেয়ার ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম সফটওয়্যারটির Home page পাওয়া যাবে।
  • শেয়ার সংক্রান্ত সার্বিক তথ্যসহ Recent News পাওয়া যাবে।
  • Reg.No ব্যবহার করে শেয়ারহোল্ডারদের সনাক্ত করা যাবে।
  • শেয়ারহোল্ডারগণ তাদের Reg. No এবং Pin Code ব্যবহার করে তাদের প্রোফাইল, একাউন্ট ব্যালেন্স এবং হালনাগাদ রিপোর্ট সংগ্রহ করতে পারবেন।
  • শাখা ব্যবস্থাপক কর্তৃক শেয়ার আবেদনের তথ্যসমূহ এন্ট্রি প্রদান ও যাচাই-বাছাই কাজ সম্পন্ন করা হবে।
  • প্রধান কার্যালয় হতে আর্থিক বছর অনুসারে নির্দিষ্ট হার অনুযায়ী Dividend Calculation করা হবে।
  • মূনাফার তথ্য স্বয়ংক্রিয়ভাবে মোবাইল SMS এর মাধ্যমে System থেকে প্রেরণ করা হবে।
  • নতুন শেয়ার ক্রয়ের ক্ষেত্রে SMS এর মাধ্যমে শেয়ারহোল্ডারদের Unique Reg. No এবং Pin Code সরবরাহ করা হবে।
  • Reg. No এবং Pin Code ব্যবহার করে অনলাইনের মাধ্যমে শেয়ারহোল্ডারগণ প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহ করতে পারবে। মোবাইল SMS এর মাধ্যমে হালনাগাদ ব্যালেন্স সর্ম্পকে জানা যাবে।
  • এই System এর মাধ্যমে যেকোন স্থান থেকে শেয়ার সংক্রান্ত যেকোন রিপোর্ট পাওয়া যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.